লালুপ্রসাদের পশুখাদ্য মামলায় নয়া তথ্য, মোষের শিং পালিশে তেলের খরচ শুনলে অবাক হবেন

197
লালুপ্রসাদের পশুখাদ্য মামলায় নয়া তথ্য, মোষের শিং পালিশে তেলের খরচ শুনলে অবাক হবেন

পশুখাদ্য কেলেঙ্কারিতে হাজতবাস হয়েছে বিহারের মুখ্যমন্ত্রী লালুপ্রসাদ যাদবের। কোটি কোটি টাকা অপচয়ের অভিযোগ উঠেছিল তাঁর বিরুদ্ধে। এবার মোষের শিং পালিশের খরচ নিয়ে রাজ্যের বিধানসভায় উঠে এল এক নয়া তথ্য। যেখানে বলা হয়েছে ছয় বছরে মোষের সিং পালিশের জন্য লালু প্রসাদের সরকার 50 হাজার লিটার সর্ষের তেল ব্যবহার করেছিল। যার জন্য বিহার সরকারের খরচ হয়েছিল 16 লক্ষ টাকা। বিধানসভার বাদল অধিবেশনে এক্সেস এক্সপেন্ডিচার অ্যাপ্রোপ্রিয়েশন বিল- ২০১৯ নিয়ে আলোচনার সময় এই তথ্য তুলে ধরেছেন রাজ্যের উপমুখ্যমন্ত্রী সুশীল মোদী।

ওই বিলের মধ্য দিয়েই 1977-78 এবং 2015-16 সালের আর্থিক অপচয়ের তথ্য উঠে আসে এবং লালুপ্রসাদ যাদবের পশুখাদ্য কেলেঙ্কারিও উঠে আসে। সেখানেই বিভিন্ন প্রসঙ্গে মোষের শিং পালিশের প্রসঙ্গ তুলে ধরেন সুশীল মোদী। তিনি জানান ১৯৯০-৯১ সাল থেকে ১৯৯৫-৯৬ পর্যন্ত সময়ে মোট ৪৯ হাজার ৯৫০ লিটার সর্ষের তেল কেনা হয়েছিল। হটওয়ার্ক মিল্ক সাপ্লাই কাম ডেয়ারি ফার্মের ম্যানেজার জ্যানুয়েল ভেঙ্গরাজ ভুয়ো বিল দেখিয়ে ওই টাকা হাতিয়ে নিয়েছিলেন। সরকারি নিয়ম অনুযায়ী, পশুখাদ্যে ১৫% আমন্ড খোল মেশানোর কথা। তার খরচ দেখানো হয়েছে ৭.৬৯ কোটি টাকা।

তবে শুধুমত্র এই দুটিই নয় সেসময়ের পশুখাদ্য কেলেঙ্কারিতে এমন সব তথ্য উঠে এসেছিল যা সকলের চোখ কপালে তুলে দিয়েছিল। সরকারি হিসেব অনুযায়ী যতগুলো গবাদি পশু ছিল বাস্তবে তার কোনো অস্তিত্বই ছল না এমনটাই জানা গিয়েছিল। এছাড়াও পশুখাদ্য নিয়েও অনেক দুর্নীতি করেছিলেন সেসময়ের বিহারের মুখ্যমন্ত্রী লালুপ্রসাদ যাদব।