দশটি নিয়ম মেনে চলুন সর্দি কাশি আপনার ধারে কাছে আসতে পারবে না

422
দশটি নিয়ম মেনে চলুন সর্দি কাশি আপনার ধারে কাছে আসতে পারবে না ।।

আবহাওয়ার খামখেয়ালিপনায় সারা বছরই সর্দি কাশিতে ভুগে থাকেন মানুষজন। বিশেষ করে সিজন চেঞ্জের সময় এই সমস্যা বেশি দেখা যায়। হাঁচি সর্দি কাশি এসবের জন্য শরীর একেবারে কাহিল হয়ে যায়। ওষুধ খেয়ে সাময়িক স্বস্তি মিললেও তা কিন্তু পুরোপুরি সেরে ওঠে না । তাই খাবারের তালিকায় ছোটখাটো বদল করলেই সর্দি কাশি ধরা ছোঁয়ার বাইরে থাকবে।

তাই জেনে নিন ঘরোয়া টোটকায় কীভাবে সর্দি কাশি দূরে রাখবেন-

1. রোজ খাবারের তালিকায় ভিটামিন সি সমৃদ্ধ খাবার রাখুন। পাতিলেবু কাঁচালঙ্কা মুসাম্বিলেবু বা কমলালেবু এগুলি নিয়মিত খেলে সর্দি কাশি কাছে ঘেঁষতে পারে না।

2. নিয়মিত মধু খান কারণ মধুতে থাকা অ্যান্টি অক্সিডেন্ট উপাদান শরীরের জন্য ভীষণ ভাবে উপকারী বিশেষ করে কাশির সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। তাই প্রতিদিন সকালে এক চামচ করে মধু খাওয়া অত্যন্ত জরুরি।

3. রোদ থেকে সরাসরি এসিতে নয় আগে ঠান্ডা জায়গায় ঘাম শুকিয়ে নিন তার পরে এসিতে ঢুকুন এতে সর্দি কাশির সমস্যা থেকে রেহাই পাওয়া যায়।

4. যাঁদের সাইনাসের ধাত রয়েছে তাঁরা এই বারেই এয়ার কুলার ব্যবহার করবেন না। এয়ার কুলারের ঠান্ডা আর্দ্র হাওয়া সর্দি কাশির জন্য দায়ী।

5. রোদে বের হওয়ার আগে অবশ্যই ছাতা বা টুপি ব্যবহার করতে হবে।

6. রোদ থেকে এসে ফ্রিজের জল একেবারেই না।

7. রাস্তা থেকে এসে আগে হাত মুখ ভাল করে ধুয়ে  নেবেন তার পর খাবার খাবেন। জীবাণুর সংক্রমণে সর্দি কাশি বেশি হয়।

8. বৃষ্টিতে ভিজে গেলে বাড়ি ফিরে স্নান করে চুল শুকিয়ে নিন কখনোই বৃষ্টির জল গায়ে বসতে দেবেন না।

9. ভেজা চুল বেঁধে বাইরে যাওয়া বন্ধ করুন দরকার পড়লে ড্রায়ার বা তোয়ালে দিয়ে ভালো করে চুল মুছে শুকিয়ে নিন।

10. আইসক্রিম খাওয়ার পর ঘরোয়া মাত্রায় এক গ্লাস জল খেয়ে নিন এতে সর্দি বা কাশি কোনওটাই ছুঁতে পারে না।