বিউটি পার্লারে গিয়ে নিজের সুন্দর মুখ পুড়িয়ে এলেন বাড়ি, জেনে নিন মর্মান্তিক কাহিনী

144

বর্তমানে বহু মেয়েরাই যায় পার্লারে নিজেকে আরো সুন্দর করে তোলার জন্য। কখনো ব্রাইডাল মেকআপ কখনো শুধুমাত্র স্পা, ভ্রু প্লাগ থেকে শুরু করে ফেসিয়াল সবকিছুরই একটাই ঠিকানা বিউটি পার্লার।কিন্তু যেখানে নিজেকে আরো সুন্দর করে তোলার জন্য আমাদের যাওয়া,সেখানেই শুধুমাত্র একটি ভুলের জন্য যদি আমাদের জীবন নষ্ট হয়ে যায, তাহলে কি কখনো আমরা আমাদের ক্ষমা করতে পারব? নাকি ক্ষমা করতে পারব, যার একটিমাত্র ভুলের জন্য জীবন শেষ হয়ে গেল?

আইআইটি গোহাটি প্রাক্তন ডক্টর বিনীতা নাথের সঙ্গে এমনই একটি ঘটনা ঘটেছে যা শুনলে, রীতিমতো হকচকিয়ে যাবেন আপনি। ডক্টর বিনীতা নাথ ইতালির ইউনিভার্সিটি অফ রমে পোস্ট করেছেন। ছুটিতে নিজের বাড়িতে এসেছিলেন তিনি।ফাঁকতালে গিয়েছিলেন শিলচরের সারোদা পার্লারে। এটি বিয়ে বাড়ির অনুষ্ঠানে যোগ দেবার জন্য পার্লারে গিয়ে ছিলেন বিনীতা। খুব বেশি পার্লারে না গেলেও মাঝে মাঝে ফেসিয়াল করার জন্য যেতেন তিনি পার্লারে। তিনি বলেছেন যে, কখনোই থ্রেডিং করিনি আমি। যেখানেই যেতাম শুধুমাত্র ফেসিয়াল করতাম। শিলচরের পার্লারে গিয়ে একই কথা বলি আমি।

পার্লারে আমাকে বলে যে, আমার মুখে কিছু চুল রয়েছে যা, ওযক্সিন না করলে যাবে না। যদি নিতান্তই আমি ওয়াকসিন না করি, তাহলে আমাকে মুখে ব্লিচ করার পরামর্শ দেন তারা। আমি তাদের রাজি হয়ে যাই। আমাকে ফেসিয়াল করার পর যখন ব্লিচ করানো হয়, এক মুহূর্তের জন্য মনে হয়েছিল ফুটন্ত তেলে যেন ঢেলে দিলো আমার মুখ। আমি যন্ত্রণায় চিৎকার করে উঠি। ওটা সঙ্গে সঙ্গে আমার মুখ থেকে লেয়ারটা সরিয়ে দেয়। আমার মুখে আইসব্যাগ দেওয়া হয়, কিন্তু তখন অনেকটাই দেরি হয়ে গিয়েছিল।

এরপর আমার মুখে একাধিক পোড়া দাগ হয়ে যায়। সঙ্গে সঙ্গে আমি কাছের একজন চিকিৎসকের কাছে যাই। চিকিৎসক আমাকে দেখে বলে যে, এগুলি সব ক’টি পোড়া দাগ। অনেকটা সময় লাগবে সারতে, ডক্টর বিনীতা নাথ এই কর্মকান্ডের জন্য দায়ী করেছেন পার্লার কে। অভিযুক্ত পার্লারের যুগ্ম কর্ণধার গোটা ব্যাপারটাই খুবই বিস্মিত হয়েছেন। তবে একই সঙ্গে তিনি বিনীতা দেবীর কাছে ক্ষমা চেয়ে নিয়েছেন। কর্ণধার জানিয়েছেন যে, আমার বাবা শয্যাশায়ী তাই আমরা কেউ পার্লারে ছিলাম না সেদিন। কোন একটি কারণে ভুল হয়ে গেছে পার্লারের কর্মরত কর্মীদের।তবে একটা কথা ভীষণ ভাবে মনে হচ্ছে, আমরা যদি কেউ সেখানে উপস্থিত থাকতাম তাহলে এত বড় ঘটনা আটকাতে পারতাম।