এক ধাক্কায় নিজের ওজন ৯০ কেজি থেকে ৩০ কেজি ওজন কমিয়েছেন, সোনাক্ষী সিনহা

160

শরীরের অতিরিক্ত মেদ কমানো একপ্রকার মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে এখনকার প্রজন্মের।পুরুষদের পাশাপাশি এই বিষয়ে বেশি চিন্তিত মেয়েরা। শুধুমাত্র স্লিম থাকলে দেখতে ভালো লাগবে তার জন্য নয়, বিভিন্ন রোগ থেকে মুক্তি পাবার জন্য আপনাকে হতে হবে রোগা। তবে আমাদের সকলের জন্য বাইরে গিয়ে এক্সেসাইজ করা সম্ভব হয় না। তাই আমাদের জন্য কিছু টিপস নিয়ে এসেছেন সোনাক্ষী সিনহা। হ্যাঁ ইনি হলেন সেই সোনাক্ষী সিনহা যিনি, শত্রুগণ সিনহার একমাত্র কন্যা। ইনি হলেন সেই অভিনেত্রী যিনি, এক ধাক্কায় নিজের ওজন ৯০ কেজি থেকে ৩০ কেজি ওজন কমিয়েছিলেন।

সোনাক্ষী সিনহা জানিয়েছেন যে,প্রতিদিনের অনিয়ম খাওয়া-দাওয়ার কারণে শরীরের অতিরিক্ত মেদ বেড়ে যায়। আমরা সকলেই অতিরিক্ত জাঙ্কফুড খেয়ে অভ্যস্ত। এছাড়াও কাজের চাপে আমাদের সময়মতো খাওয়া-দাওয়া করা হয় না। তাই এই ব্যস্ততার জীবনে অনিয়মিত খাদ্যাভাস থাকার কারণে আমাদের শরীরে জমে যায় অতিরিক্ত মেদ। তবে জিমে না গিয়ে শুধুমাত্র বাড়িতে বসে সহজ কিছু উপায় মেদ ঝরিয়ে ফেলার উপায় বলে দিলেন সোনাক্ষী সিনহা।

তিনি সকলের সঙ্গে শেয়ার করলেন তার ব্যক্তিগত কিছু অভিজ্ঞতার কথা। তিনি বললেন যে যখন তিন হেভিওয়েট ছিলেন তখনো তিনি জিমে যাওয়া পছন্দ করতেন না। এপ্রকার অপছন্দ করতেন জিমে যাওয়া। বাড়িতে বসে তাই কিভাবে কার্ডিও করবেন, তা নিজের ওয়ার্ক আউটের ভিডিও পোস্ট করে সকলকে জানালেন অভিনেত্রী। তিনি যে ভিডিওটি পোস্ট করেছেন সেখানে তাকে, লাফ দড়ি হাতে প্রথমে বডিস্ট্রেচ করতে দেখা গেছে।

ভিডিওটি এবং ছবিটি পোস্ট করে সোনাক্ষী সিনহা লিখেছেন, জিম নেই তো কি হয়েছে? এটা কোন সমস্যাই নয়। প্রতিদিন যদি স্কিপিং করতে পারেন, তাহলে কমে যাবে আপনার অতিরিক্ত বেলি ফ্যাট।এছাড়াও প্রতিদিন নিয়ম করে আধঘন্টা যদি হাঁটতে পারেন, তাহলেই মেদ ঝরে যাবে খুব তাড়াতাড়ি।

স্কিপিং করলে শুধুমাত্র মেদ ঝরে যে তা নয়, নিয়মিত যদি আপনি স্কিপিং করতে পারেন, তাহলে আপনার মনের অবসাদ দূর হয়ে যাবে। বেশি পরিশ্রম করলে আপনার ঘুম ভালো হবে। তার ফলে আপনার হৃদরোগের সমস্যা অনেকটাই কমে যাবে।প্রসঙ্গত উল্লেখ্য,ফ্যাশন ডিজাইনার হিসাবে নিজের ক্যারিয়ার প্রথমে শুরু করেছিলেন সোনাক্ষী। তারপর কালচক্রে তার বলিউডে প্রবেশ। সোনাকসি শরীরচর্চার জন্য অনেক কিছুই করেন। তার মধ্যে প্রচুর পরিমাণে জল খান তিনি। এছাড়া ফলের রস অথবা গ্রিন টি অবশ্যই থাকে তার খাদ্য তালিকার মধ্যে।