এবার গৃহস্থের হেঁসেলেও প্রবেশ করছে রকেট! এবার রান্নাও হবে রকেটের গতিতে

183

এবার গৃহস্থের হেঁসেলেও প্রবেশ করছে রকেট! রান্না হবে একেবারে রকেটের মতোই দ্রুতগতিতে এবং নির্ঝঞ্ঝাটে। পাশাপাশি, এই অভিনব রকেট স্টোভ কিন্তু পরিবেশ বান্ধবও বটে। দামও এমন কিছু আহামরি নয়, নিতান্তই সাধারণের নাগালের মধ্যেই রয়েছে। অতএব সবদিক দিয়ে বিচার করলে কেরলের থ্রিক্কাকারার বাসিন্দা আব্দুল করিমের অভিনব উত্পাদন এই রকেট স্টোভ কিন্তু বাজারে বেশ সাড়া ফেলে দিয়েছে।

সনাতন পদ্ধতির সঙ্গে বিজ্ঞানের মিলমিশ ঘটিয়েই এমন স্টোভ উদ্ভাবন করে ফেলেছেন আব্দুল করিম। এই স্টোভে রান্না করতে গেলে বিদ্যুৎ, কেরোসিন, গ্যাস কিছুই লাগেনা। একেবারে কাগজপত্রের মত কিছু সাধারন বর্জ্য পদার্থ এবং শুকনো লতাপাতা, কাঠ, নারকেলের খোলা এক্ষেত্রে জ্বালানি হিসেবে ব্যবহার করা যায়। ফলে এই স্টোভের ব্যবহার অন্যান্য খরচ কমিয়ে দিয়েছে।

শুধু তাই নয়, অন্যান্য স্টোভের তুলনায় ৮০ শতাংশ কম ধোয়া উৎপাদন করতে সক্ষম এই রকেট স্টোভ। যার ফলে পরিবারের মহিলাদের স্বাস্থ্যও সুরক্ষিত থাকছে। আবার নিতান্তই যে ১০ থেকে ২০ শতাংশ ধোঁয়া নির্গত হচ্ছে তাও একটি পাইপের মাধ্যমে বাইরের পরিবেশে মুক্ত হয়ে যেতে পারবে। অর্থাৎ ফ্ল্যাট এবং অ্যাপার্টমেন্টের ক্ষেত্রে এই স্টোভের ব্যবহার একেবারেই আদর্শ।

এই ধরনের একটি স্টোভ কিনতে খরচ পড়তে পারে সর্বোচ্চ ১৪ হাজার টাকা। আবিষ্কর্তা জানাচ্ছেন, বর্তমানে রকেট স্টোভের অন্তত পাঁচটি মডেল তিনি বাজারে ছেড়েছেন। অন্যান্য মডেল গুলির দাম অবশ্য সাধারণের আয়ত্তের মধ্যেই রয়েছে। যার মধ্যে বেসিক স্টোভের দাম পড়বে মাত্র ৪ হাজার ৫০০ টাকা।