চাণক্য নীতি অনুযায়ী আসল বন্ধু চেনার উপায়, দেখে নিন

15

চাণক্য ছিলেন পুরান যুগের একজন বিখ্যাত বিদ্বান। তার দেখানো পথে আজও প্রত্যেক মানুষকে প্রভাবিত করে। তিনি যে সমস্ত বিষয়ে পথ দেখিয়েছিলেন সকলকে, তা আজও সকলের কাছে সমানভাবে গ্রহণযোগ্য। তিনি বন্ধুত্ব সম্পর্কে সকলকে উপদেশ দিয়ে বলেছিলেন, বন্ধুত্ব এমন একটি সম্পর্ক যা মানুষ উত্তরাধিকারসূত্রে পায়না।

রক্তের সম্পর্ক ছাড়া কোনো সম্পর্ক যদি মানুষের সব থেকে কাছের হয়, তা হলো মানুষের বন্ধুত্বের সম্পর্ক।চাণক্য সব সময় মানুষকে বন্ধুত্ব করার আগে চিন্তা ভাবনা করে নিতে বলেছেন। চাণক্যের মতে, সম্পর্কের প্রতি যদি বিশ্বাস এবং ভালোবাসা থাকে, তাহলে সেই বন্ধুত্ব সর্বদা গ্রহণ করা উচিত। বন্ধুত্ব করাটাকে সর্বদা সেই মানুষটিকে যাচাই করে নেওয়া উচিত। বন্ধু যখন প্রতারণা করে, তখন স্বাভাবিকভাবেই মানুষ ভেঙে পড়ে।

বন্ধুত্বের ক্ষেত্রে কখনোই মর্যাদা অতিক্রম করা উচিত নয়। বিপদের সময় যে মানুষ আসে থাকে তাকে সত্যিকারের বন্ধু বলা হয়।বন্ধুত্বের ক্ষেত্রে কোন প্রকার ভালোবাসা প্রদর্শন করবেন না। সবসময় নিজের দিক থেকে সততা বজায় রাখবেন। বন্ধুত্বের প্রতি নির্ভরতা এবং উৎসর্গের দ্বারা তাকে আরো সুদৃঢ় করে তুলবে। বন্ধুত্ব কখনো দেখানো যায় না, বিশ্বাস করতে হয়। খারাপ সময় যে মানুষ আপনার পাশে থাকবে, সেই হলো প্রকৃত বন্ধু। যারা খারাপ সময় আপনাকে এড়িয়ে চলবে, তাদেরকে আপনি এড়িয়ে চলতে শিখুন। চাণক্যের মতে, স্ত্রী, চাকর এবং সত্যি কারের বন্ধু চেনা যায় দুঃসময়ে। যে ব্যাক্তি খারাপ পরিস্থিতিতে আপনাকে সমর্থন করে, তাকে চোখ বন্ধ করে বিশ্বাস করুন।