ফুচকার অপকারীতা জানেন কি? জানলে পরে আর খেতে চাইবেন না….

1216
ফুচকার অপকারীতা জানেন কি? জানলে পরে আর খেতে চাইবেন না....

বিকেলে বন্ধু-বান্ধবী কিংবা পরিবারের সাথে ঘুরতে বেরিয়েছেন , হয়তো বাজারে কোন ফুচকা স্টল দেখে জিভে জল এল। হ্যাঁ, ফুচকা এমনই এক জিভে জল আনা খাবার। সবাই ফুচকা খেতে খুবই পছন্দ করে, লোভের বশে বেশি বেশি করে খেয়েও ফেলে। কিন্তু এটা ভাবে না খাওয়ার টা কতটা ক্ষতিকারক।

আসুন জেনে নিই ফুচকার অপকারী গুনগুলো……….

বমি হওয়া:- যেহেতু আপনি রাস্তার কোন স্টল থেকে এটি খাচ্ছেন তাই খাওয়ারের সাথে সাথে বিভিন্ন ধরনের জীবাণু আপনার শরীরে প্রবেশ করছে। এতে বমি হওয়া স্বাভাবিক যা আপনার শরীরকে দুর্বল করে দেবে।

ডায়রিয়া:- বিভিন্ন ধরনের জীবাণু আপনাকে আক্রমণ করলে আপনার হজম শক্তি কমিয়ে দেবে ফলে আপনার ডায়েরিয়া হওয়ার প্রবল সম্ভাবনা থেকে যায়।

দুর্বল শরীর:– বারবার বমি হলে যে খাওয়ার গুলো আপনি খাবেন তার পুরোটাই বাইরে নির্গত হয়ে যাবে। আপনি ধীরে ধীরে দুর্বল হয়ে পড়বেন।

গ্যাস:- হজম শক্তি কমে যাওয়ার ফলে আপনার শরীরে গ্যাস উৎপন্ন হবে যা প্রবল পেটের যন্ত্রনার কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

পেটের সমস্যা:- ফুচকার টকজলে যে জল ব্যবহৃত হয় সে জলটা কি আদেও বিশুদ্ধ সেটা পুরোপুরি আপনার অজানা রয়ে যায়। তাই ওই জল খাওয়ার ফলে যে আপনার শরীর ভালো থাকবে সেটার প্রতি আপনি নিশ্চিত নন।