পোষ্য অন্তঃসত্ত্বা, গৃহকর্তা সারমেয়কে করালেন সাধভক্ষণ, কুর্নিশ জানালো নেট দুনিয়া

1606

বাড়িতে নতুন সদস্যের আগমনের খবর পেলে কার না আনন্দ হয়। তাই তো সন্তান যাতে সুস্থ সফলভাবে পৃথিবীর আলো দেখে তার জন্য ভাবি মায়ের যত্নআত্তির কোনো ত্রুটি রাখেন না পরিবার-পরিজনরা। কিন্তু মহিলারাই কি শুধু যত্ন-আত্তি পাওয়ার দাবিদার, বাড়িতে যদি কোনো সারমেয় সন্তানসম্ভবা হয়ে থাকে তাহলে তার প্রতিও যত্ন নিতে হবে বৈকি। তার প্রতিটি সন্তান যাতে সুস্থ ভাবে পৃথিবীতে পদার্পণ করে তার দিকে বিশেষ গুরুত্ব তো দিতেই হবে।

তেমনটাই করলেন সারমেয় প্রেমী এক পরিবারের সদস্যরা। বাড়ির বড় আদরের সদস্য লুসি। সম্প্রতি সন্তানসম্ভবা হয়েছে সে। শীঘ্রই তার সন্তানেরা পৃথিবীর আলো দেখতে চলেছে। তার আগে লুসির যত্ন নিতে কোনো ত্রুটিই রাখছেন না পরিবার-পরিজনরা। বাদ যাচ্ছে না কোনো নিয়ম-কানুন। বাঙালি পরিবারে সাধ-ভক্ষণ একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ রীতি। আসন্ন প্রসবা মা এবং তার শিশুর সুস্থতা কামনা করে এই রীতি পালন করা হয়।

লুসি এবং তার সন্তানেরাই বা এমন শুভ অনুষ্ঠান থেকে বাদ পড়বে কেন? তাই ওই পরিবার অত্যন্ত ধুমধাম করেই লুসির সাধ ভক্ষণ অনুষ্ঠান পালন করলো। সকাল সকাল তাকে সবুজ ফ্রক পরিয়ে তার মাথায় রঙিন ফিতে বেঁধে দিলেন গৃহকর্তা। এরপর সুন্দর করে সাজানো অনুষ্ঠানস্থলে তাকে নিয়ে যাওয়া হয়। বাড়ির মহিলারাও প্রদীপ জ্বালিয়ে তাকে বরণ করে নিলেন।

এরপর হিন্দু রীতি নীতি মেনে শুরু হয়ে গেল তার সাধ ভক্ষণ অনুষ্ঠান। খাবার পর শুরু হলো ফটোসেশন পর্ব। এই যুগে যে কোনো অনুষ্ঠানের ক্ষেত্রেই ফটোসেশন তো মাস্ট। লুসির সাধ ভক্ষণ অনুষ্ঠানের ক্ষেত্রেও তার অন্যথা হলো না। পরিবারের সকলের সঙ্গে মিলে সে তার এই বিশেষ মুহূর্তের ছবি ক্যামেরাবন্দি করে রাখলো। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ভিডিও রীতিমতো ভাইরাল। এই চরম আধুনিকতার যুগেও যেখানে নিরীহ পশুদের উপর নানান অত্যাচারের খবর প্রায়শই প্রকাশ্যে আসে, সেখানে এই অনুষ্ঠান রীতিমতো নজিরবিহীন, দৃষ্টান্তমূলকও বটে।