চুল কালো ও ঘন করার পদ্ধতি,দেখে নিন

79

বর্তমান যুগে ছেলে মেয়েদের মধ্যে চুলে রং করা হাইলাইট করা স্ট্রেটনিং করানোর স্মোকিং করানো একটা ফ্যাশনে পরিণত হয়েছে। অনেকে ভাবে এগুলো যদি না করানো হয় তাহলে হয়তো অন্যদের থেকে পিছিয়ে পড়তে হবে। এজন্য অনেকে অনেক ধরনের কেমিক্যাল ব্যবহার করে থাকে। যারফলে চুল নষ্ট হওয়ার সম্ভাবনা খুবই বেড়ে যায়।অনেক বয়স্কদের মধ্যেও দেখা যায় পাকা চুল কালো করার জন্য নানা ধরনের ক্যেমিকেল রং বা কলপ ব্যবহার করে থাকে। কিন্তু চুলে ব্যবহত রঙে বা কলপে অ্যামোনিয়া থাকে যা চুল ও স্কিন দুটোর পক্ষে খুব ক্ষতিকারক অনেকের এরফলে এলার্জি হয়।

প্রাকৃতিক উপায়ে চুলে কালো রাখার জন্য ঘরে এই পদ্ধতিটি অবলম্বন করতেই পারেন।এই পদ্ধতিটি খুবই সহজ একটি ভালো ঝিঙ্গে নিতে হবে। তারপর সেটিকে টুকরো টুকরো করে কেটে একটি পাত্রে নারকেল তেল নিয়ে সেই ঝিঙ্গেগুলিকে রেখে দিতে হবে। অবশ্য যেন পাত্রটি ঢাকা থাকে, ওই তেলটিকে তিন-চারদিন ওইভাবেই রেখে দিতে হবে। তারপর ওই তেলটিকে সামান্য গরম করে মাথায় লাগাতে হবে অথাৎ চুলের গোড়ায় গোড়ায় দিতে হবে।

কমপক্ষে ২-৩ ঘন্টা তেল রেখে দিতে হবে মাথায়। তারপর শ্যাম্পু ও কন্ডিশনার দিয়ে ভালো করে চুলটিকে ধুয়ে নিতে হবে। এইভাবে কয়েকদিন করতে থাকলে দেখা যাবে আপনার চুল আগের চেয়ে অনেক বেশী মজবুত ও কালো হয়ে গেছে। তবে ঝিঙ্গের আরো অনেকগুণ রয়েছে যেমন নানা ধরনের ব্যাকটেরিয়া ও ভাইরাসের হাত থেকে রক্ষা করার জন্য ঝিঙ্গে অনেক ওষুধে ব্যবহার করা হয়ে থাকে।