বস্তা দিয়ে বানানো ছেলেদের পোশাক, স্টাইলিশ দেখতে প্যান্ট নিয়ে রসিকতা নেট দুনিয়ায়

41

ভারতকে আত্মনির্ভর করার জন্য ডাক দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। কিন্তু সেই ডাক যে কেউ কেউ খুব সিরিয়াসলি নিয়ে নেবে তা হয়তো অনেকেই বোঝেননি। আমাদের ভারতবর্ষের স্থানীয় শিল্প হলো চট শিল্প। হালফ্যাশনের মধ্যে এই চট শিল্প কোথাও যেন হারিয়ে গেছে। তবে সকলকেই যেমন ফিরে আসতে হয়, তেমনই এই চট কেও ফিরে আসতে হয়েছে সকলের মাঝখানে। একেবারে অন্য রূপে ধরা দিল সে সকলের সামনে। ইদানিং সোশ্যাল মিডিয়াতে সর্বোচ্চ দেখা যাচ্ছে এই ট্রেন্ডিং।

বস্তা দিয়ে তৈরি করা হচ্ছে প্যান্ট। একেবারেই ঠিক শুনেছেন। বস্তা দিয়ে তৈরি করা হচ্ছে মানুষের পড়ার উপযুক্ত প্যান্ট। দোকানের সামনে সবজির বস্তা নিয়ে তৈরি একটি প্যান্ট এর ছবি পোস্ট করেছিলেন আইপিএস অফিসার অরুণ bothra। এই ছবিটি সোশ্যাল মিডিয়াতে হু হু করে ভাইরাল হয়ে যায়। প্যান্টের বাইরের আবরণ পুরোটাই সবজির বস্তা দিয়ে তৈরি করা হয়েছে। তাতে আবার আলু পেঁয়াজের বস্তার মত অবিকল সাল-তারিখ দাম লেখা রয়েছে।একটু ভালো করে দেখলে বোঝা যাবে যে, প্যান্টের ভেতর আরেকটি স্তর রয়েছে।

যেটি মোলায়েম কাপড় দিয়ে তৈরি করা হয়েছে। উপরের অংশটি দড়ি দিয়ে বাঁধা।এই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ার পর রসিকতা শুরু করেছেন অনেকেই। যেমন কিছু বছর আগে ছেঁড়া প্যান্ট নিয়ে রসিকতা তৈরি হয়েছিল সকলের মধ্যে। ঠিক একইভাবে এই প্যান্ট কে নিয়ে রসিকতা করা হচ্ছে। এই ছবিটি পোস্ট করে আইপিএস অফিসার লিখেছেন যে,”সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি ঘরোয়া পণ্য”। আইএফএস পর্ভীন কাওসাল লিখেছেন,” মা যেন না দেখে, দেখতে পেলে পুরনো বস্তা দিয়ে দু’চারটে তৈরি করে নেবে সেলাই করে”। অঙ্কিতা নামের একজন কৌতুকের ছলে মেরিলিন মনরোরজড়ানো ছবিও পোস্ট করেছে সোশ্যাল মিডিয়াতে।