জেনে নিন পেঁয়াজ ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রনে কতটা উপকারী,,পেঁয়াজ নিয়মিত খান!

95
জেনে নিন পেঁয়াজ ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রনে কতটা উপকারী,,পেঁয়াজ নিয়মিত খান!

একবার ডায়াবেটিসে কেউ আক্রান্ত হলে সুগার সহজে কমানো যায় না। তারজন্য মানতে হয় অনেক নিয়ম কানুন। একটু অনিয়ম হলেই সুগারের মাত্রও নিয়ন্ত্রণে রাখা খুবই কঠিন। সুগারের মাত্রা সাধারণ রাখার জন্য আপনাকে করতে হবে নিয়মিত এক্সারসাইজ। সুগারের ফলে কিডনি এবং হার্টের সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই সুগার নিয়ন্ত্রণে রাখা খুবই জরুরি।

আমরা প্রায় সব রান্নাতেই পেঁয়াজ ব্যবহার করে থাকি। পেঁয়াজ খেলে ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রণে আসতে পারে। তাই আপনার যদি ব্লাড সুগার থাকে তবে পেঁয়াজ খাওয়া অভ্যাস করুন। একটি গবেষণায় দেখা গেছে, লাল পেঁয়াজ ব্লাড সুগার কমে যায়। ১০০ গ্রাম লাল পেঁয়াজ মাত্র ৪ ঘন্টায় কমিয়ে দেয় রক্তে সুগারের মাত্রা।

যেসব খাবারে Glycaemic index কম থাকে, সেইসব খাবার সুগারের রোগীদের জন্য ভালো। পেঁয়াজে Glycaemic index কম থাকে। তাই ডায়াবেটিস হলে পেঁয়াজ খাওয়া ভালো। পেঁয়াজে কার্বোহাইড্রেডের মাত্রা খুব কম থাকে। তাই সুগারে পেঁয়াজ খাওয়া ভালো। ডায়াবেটিসে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হল ফাইবার। পেঁয়াজে প্রচুর পরিমানে ফাইবার থাকে। তাই পেটের সমস্যা হওয়ার কোনও ভয় নেই। প্রতিদিন পেঁয়াজ খেলে কোলেস্টেরলের মাত্রা কমে ও হার্ট সুস্থ থাকে।

লাঞ্চ বা ডিনার, দুই সময়েই কাঁচা পেয়াজ খান। স্যালাডেও যুক্ত করে দিতে পারেন। পেঁয়াজ অবশ্যই লাল রঙের হতে হবে। এছাড়া প্রতিদিন জাম, এলাচ, ডিম, বাদাম, হলুদ, ব্রকোলি, অ্যাপেল খাবেন, সুগার নিয়ন্ত্রণে থাকবে এবং আপনাকে থাকতে হবে চিন্তামুক্ত।