ভরসা রাখুন এই পাঁচটি পানীয়ের ওপর হাইপার টেনশনে থেকে মুক্তি পাবেন

82
ভরসা রাখুন এই পাঁচটি পানীয়ের ওপর হাইপার টেনশনে থেকে মুক্তি পাবেন

হাইপ্রেশারের সমস্যা অনেকেরই থাকে। হাইপ্রেশার বা হাইপার টেনশনের সমস্যা এতটাই মারাত্মক যে হার্ট অ্যাটাক বা অন্যান্য বড় রোগের সৃষ্টি হয়, একটি সমীক্ষায় দেখা গেছে তিনজন ভারতীয়ের মধ্যে একজন হাইপ্রেশারের সমস্যায় ভোগেন। তাই হাইপ্রেশারের জন্য চিকিত্সকের পরামর্শ নিয়ে ওষুধ খেয়ে থাকেন হাইপ্রেশারের রোগীরা।

কিন্তু ওষুধ ছাড়া যদি প্রাকৃতিক উপাদানের মাধ্যমে হাইপ্রেসার নিয়ন্ত্রণে রাখা যায় তাহলে শরীরের পক্ষে অত্যন্ত ভালো। হাইপ্রেশার নিয়ন্ত্রণে পাঁচটি পানীয়-

বোদানার রস- বেদানায় প্রচুর পরিমানে পটাশিয়াম থাকে। পটাশিয়াম রক্চাপ কমাতে সাহায্য করে। একইসঙ্গে বেদানায় প্রচুর পরিমানে অ্যান্টি অক্সিডেন্টও থাকে। তাই হাইপ্রেশারের রোগীরা বেদানার রস পান করতে পারেন।

লোফ্যাট মিল্ক- দুধে পটাশিয়াম, ভিটামিন, ফসফরাস, ক্যালসিয়াম থাকে যা হাইপারটেনশনকে দূরে রাখতে সাহায্য করে।

অ্যাপল সাইডার ভিনিগার ড্রিঙ্ক- অ্যাপেল সাইডার ভিনিগারে পটাশিয়াম, সোডিয়াম, টক্সিন থাকে। তাই গ্লাসে জল নিয়ে হাল্কা গরম করে তারসঙ্গে মধু ও অ্যাপেল সাইডার ভিনিগার মিশিয়ে অল্প ঠান্ডা হলে পান করতে পারেন।

শিয়া সিডস ইনফিউসড ওয়াটার- শিয়া সিডে ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড থাকে যা রক্তচাপ কমাতে যাহায্য করে। সিয়া সিড ভেজানো জল পান করার পরামর্শ দেন চিকিত্সকরা।

মেথি ভেজানো জল- সুগারের পাশাপাশি রক্তের চাপ কমাতে মেখি ভেজানো জলের গুনাগুন জুড়ি মেলা ভাড়। তাই রাতে মেথি জলে ভিজিয়ে রাখুন সকালে সেই জল পান করুন।