ব্যক্তিগত ঋণ পাচ্ছেন না! জেনে নিন কি উপায় করলে ব্যাক্তিগত ঋণ পাওয়া হয়

4473
ব্যক্তিগত ঋণ পাচ্ছেন না! জেনে নিন কি উপায় করলে ব্যাক্তিগত ঋণ পাওয়া হয়

আমরা বিভিন্ন প্রয়োজনে ব্যাঙ্ক বা নন-ব্যাঙ্কিং কোনো সংস্থা থেকে ঋণ নিয়ে থাকি। ব্যক্তিগত প্রয়োজনেও আমরা ব্যক্তিগত লোন নিয়ে থাকি। কিন্তু ঋণের জন্য আবেদন করলে অনেক ক্ষেত্রেই নাকচ হয়ে যায়। কতগুলি শর্তের উপর নির্ভর করে আপনি ব্যক্তিগত লোনের জন্য যোগ্যতম হয়ে উঠবেন কিনা তা বিচার করা হয়। দেখে নিন ব্যক্তিগত ঋণ নেওয়ার ক্ষেত্রে যোগ্যতম হয়ে ওঠার কয়েকটি সহজ উপায়।

আপনি আগে যদি কোনো ঋণ নিয়ে থাকেন, সেই ঋণ পরিশোধের ইতিহাস এবং ঋণ পরিশোধের ক্ষমতার মূল্যায়নের ফলাফল হল ক্রেডিট স্কোর। একবার লেট ফি হলেই ক্রেডিট স্কোর কমে যায়। এই ক্রেডিট স্কোর যত ভালো হবে, ঋণের আবেদনে অনুমোদন পাওয়ার সম্ভাবনাও তত বেড়ে যাবে।
ঋণ পরিশোধের জন্য মাসিক কিস্তি এবং ঋণ গ্রহীতার মাসিক রোজগারের অনুপাতকে ডিটিআই অনুপাত বলা হয়। এটা মাথায় রাখবেন, কোনো ঋণের মাসিক কিস্তির পরিমান ঋণ গ্রহীতার মোট রোজগারের ৪০ শতাংশের যাতে বেশি না হয়। ঋণ দেওয়ার ক্ষেত্রে এই বিষয়টি দেখা হয়।
ঋণ দেওয়ার সময় আবেদনকারীর ঋণ শোধ করার সামর্থ দেখা হয় উপার্জন দেখে। স্থায়ী চাকরি না হলে, ঋণ শোধ করার সামর্থ ঝুঁকিপূর্ণ মনে করা হয়। ঘন ঘন একাধিক ঋণের আবেদন করলে ক্রেডিট স্কোর কমে যায়। তাই ঘন ঘন ঋণের জন্য আবেদন করা থেকে বিরত থাকা উচিত।