গুলঞ্চ লতার বিভিন্ন উপকারিতা গুলি জেনে রাখুন

500
গুলঞ্চ লতার বিভিন্ন উপকারিতা গুলি জেনে রাখুন

গুলঞ্চ একটি দীর্ঘ লতানো উদ্ভিদ। সাধারণত অন্য গাছকে অবলম্বন করে বেড়ে উঠে। পরিণত বয়সে লতাগুলো আঙ্গুলের ন্যায় মোটা হয়। লতার গায়ের ছাল কাগজের মত পাতলা। নিচে সবুজ এবং ভিতরে সাদা। স্বাদ তিক্ত ও পিচ্ছিল। পাতা সরল, একান্তর, অনেকটা পান আকৃতির, শীতকালে পাতা পড়ে, বসন্তে আবার নতুন পাতা বের হয়। ছোট হরিদ্রাভ সাদা ফুল ও মটরের মতো বীজ হয়। ফল পাকলে লাল বর্ণের দেখায়। গুলঞ্চের পাতা ও কাণ্ডের ভেষজগুণ অনন্য।

চলুন জেনে নিই গুলঞ্চ লতার বিভিন্ন উপকারিতা……….

১) ১০ থেকে ১২ গ্রাম গুলঞ্চের কাঁচা পাতা বা কাণ্ড থেঁতো করে নিন। এরপর ১ কাপ গরম জলে ৩ ঘণ্টা ভিজিয়ে রাখুন। পরে হাত দিয়ে কচলিয়ে ছেঁকে জলটুকু দিনে ২ থেকে ৩ বার পান করলে অনেক দিন ধরে ভুগতে থাকা রাতজ্বর সেরে যাবে।

২) সব ধরনের চর্মরোগে ৮ থেকে ১০ গ্রাম কাঁচা কাণ্ড থেঁতো করে ১ কাপ জলে ভিজিয়ে রেখে পরে কচলিয়ে ছেঁকে জলটুকু দিনে ২ থেকে ৩ বার পান করতে হবে। নিয়মিত এক মাস পান করলে চর্মরোগ সেরে যাবে।

৩) কৃমি দূর করতে ২ থেকে ৩ চা চামচ গুলঞ্চের কাণ্ডের রস দিনে ২ থেকে ৩ বার চিনি মিশিয়ে খেলে কৃমি থাকবে না। কমপক্ষে ৫ থেকে ৭ দিন পান করতে হবে।

৪) শারীরিক দুর্বলতা দূর করতে গুলঞ্চের কাঁচা পাতার রস উপকারী।

৫) বহুদিনের বাতজ্বর বা থেমে থেমে জ্বরের চিকিৎসায় গুলঞ্চের কাণ্ড ব্যবহার হয়।

৬) জন্ডিস, হাত-পায়ে জ্বালাপোড়া, বহুমূত্র, অর্শরোগে গুলঞ্চের কাঁচা পাতা ও কাণ্ড দুটোই ব্যবহার হয়।

৭) চর্মরোগ, শ্বাসনালির অনিয়ম, স্নায়ুশূল রোগে ব্যবহৃত হয়।

৮) বোধশক্তি উন্নত করতে গুলঞ্চের কাঁচা পাতা রস ব্যবহার হয়।

৯) কাঁচা কাণ্ডের রস মূত্র বৃদ্ধিকারক ও গনোরিয়ার চিকিৎসায় উপকারী।

১০) পান করার পরিমাণঃ পাতার রস ২ থেকে ৩ চামচ এবং কাঁচা পাতা বা কাণ্ড ৮ থেকে ১২ গ্রাম পান করতে হবে। তাজা গুলঞ্চ ব্যবহার করা ভালো।