পরকীয়ার কারনে বোনসহ প্রেমিককে যা করল!! চমকে উঠবেন!!

216
পরকীয়ার কারনে বোনসহ প্রেমিককে যা করল!! চমকে উঠবেন!!

বিবাহিত নারীর সঙ্গে পলায়ন ও সেই কাজে সাহায্য করার অপরাধে, প্রেমিক যুবক ও তার দুই চাচাতো বোনকে গাছে বেঁধে মারধরের ঘটনা ঘটেছে।

ঘটনাটি ঘটেছে মধ্যপ্রদেশের ধার জেলার অর্জুন কলোনিতে। নির্যাতিতদের মধ্যে একজন নাবালিকা রয়েছেন। এই ঘটনার পর আরও একবার প্রশ্নের মুখে ভারতের মধ্যপ্রদেশের পুলিশ প্রশাসন।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ১৪ মে, মঙ্গলবার ওই যুবকের সঙ্গে পালিয়ে যায় অভিযোগকারীর স্ত্রী। অভিযুক্তের পরিবারের দাবি, তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। ওই নারীর স্বামী স্থানীয় থানায় নিখোঁজের অভিযোগ দায়ের করেন। এরপর স্ত্রীর সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ হলে ঘরে ফিরে আসতেও অনুরোধ করেন স্বামী। তারা ফিরে আসার পর, প্রেমিক যুবক ও তার দুই চাচাতো বোনের ওপর হামলা চালায় ওই স্বামী।

আশপাশের লোকজন নিয়ে তাদের তিনজনের ওপর চড়াও হন তারা। ওই যুবককে মারধর করা হয়। আর পালাতে সাহায্য করার অপরাধে বেধড়ক মারধর করা হয় যুবকের দুই বোনকে। গাছে বেঁধে চলে নির্মম নির্যাতন। আর সেই দৃশ্যই সবাই দাঁড়িয়ে দেখে। কেউ কিছু না বলে ছবি আর ভিডিও করতেই সবাই ব্যস্ত হয়ে পড়েন। এদিকে এক ব্যক্তি ওই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আপলোড করলে তা মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়ে পড়ে।

ভিডিওতে দেখা যায়, কীভাবে তিন জনের উপর অত্যাচার করা হয়। নির্মমভাবে মারধর করা হচ্ছে এক নাবালিকা ও অপর যুবতীকে। আর পুরুষদের সঙ্গে সেই কাজে হাত বাড়িয়েছেন আশপাশের নারীরাও।

পরে ভিডিওটি দেখে পুলিশ ৯ জনের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেন। ইতোমধ্যে গ্রেফতার করা হয়েছে পাঁচজনকে। বাকিদেরও খোঁজ চালানো হচ্ছে বলে পুলিশ জানিয়েছেন।