নখ খাওযার খারাপ দিকগুলি জানেন দেখে নিন এক নজরে

257
নখ খাওযার খারাপ দিকগুলি জানেন দেখে নিন এক নজরে

একটু বিশ্রামের জন্য বসেছেন সোফায়। সামনে চলছে টিভি। এরপরও মুখে চলে গেছে ডান হাতের নখ। তার মতো অনেকেরই রয়েছে এমন অভ্যাস। অনেকেই ঘণ্টার পর ঘণ্টা এমনিভাবে নখ খেয়ে থাকেন। যতক্ষণে স্টক ফুরোয়, ততক্ষণে নখের হাল বেহাল। শুধু কী তাই, শরীরেরও একাধিক ক্ষতি হয়ে থাকে। কিছু ক্ষেত্রে তো নখের ভেতর জমে থাকা ব্যাকটেরিয়া দেহের ভেতর প্রবেশ করে এত মাত্রায় ক্ষতি করে যে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার প্রয়োজন পরে।

আপনিও যদি ব্রেকফাস্ট-লাঞ্চ-ডিনারে শুধু নখই খেয়ে থাকেন, তাহলে সাবধান! কোনো এক অজানা কারণে বহু মানুষই হাতের নখ খেয়ে থাকেন। কেউ বলেন এমনটা করলে নাকি বুদ্ধির জোর বাড়ে, আবার কারও মতে নিছক অভ্যাসের বসেই আঙুলগুলো মুখের কাছে চলে আসে। এক্ষেত্রে স্ট্রেসকেও অনেকে দায়ী করে থাকেন। একাধিক গবেষণায় দেখা গেছে নখ খেলে একাধিক রোগের প্রকোপ বৃদ্ধি পায়। সেই সঙ্গে শরীরের ভেতর জটিল সংক্রমণ দানা বাঁধার আশঙ্কাও বৃদ্ধি পায়।

চলুন এবার জেনে নিন নখ খেলে শরীরের কী কী ক্ষতি হতে পারে……….

১) মুখের দুর্গন্ধ:- গবেষণায় দেখা গেছে নখ খাওয়ার সময় হাতে থাকা ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়ারা মুখগহ্বরে প্রবেশ করে। ফলে একদিকে যেমন মুখের ভেতরে সংক্রমণের আশঙ্কা বৃদ্ধি পায়, তেমনি ব্যাকটেরিয়ার কারণে মুখ থেকে দুর্গন্ধ বের হতে শুরু করে।

২) দাঁতের ক্ষতি:- দীর্ঘদিন ধরে নখ খেলে দাঁতের ক্ষয় হতে শুরু করে। সেই সঙ্গে দাঁতের অবস্থানেও পরিবর্তন হয়। এমন অভ্যাসের কারণে দাঁত বেঁকে যায়। ফলে খাবার খাওয়ার সময় সমস্যা হতে শুরু করে। অনেক ক্ষেত্রে মাড়িতে সংক্রমণের আশঙ্কাও বৃদ্ধি পায়।

৩) ব্যাকটেরিয়াজনিত সংক্রমণ:- নখের মধ্যে প্রতিদিনই হাজারো ব্যাকটেরিয়া নিজেদের ঘর বানিয়ে চলছে। এসব ব্যাকটেরিয়াদের নখ থেকে বের করা মোটও সহজ কাজ নয়। ভালো করে হাত এবং নখ ধোয়ার পরেও এরা নখের ভিতরে থেকে যায়। ফলে যে মুহূর্তে আপনি নখ খাওয়া শুরু করেন, এই জীবাণুগুলো মুখ দিয়ে শরীরের ভেতরে চলে যায়। ফলে ব্যাকটেরিয়াল ইনফেকশনসহ একাধিক রোগের প্রকোপ বৃদ্ধির আশঙ্কা বেড়ে যায়।

৪) নখের সৌন্দর্য হ্রাস:– যারা হাতের নখ খায়, দেখবেন তাদের নখগুলো এতটাই ছোট হয়ে যায় যে কেমন বাজে দেখতে লাগে। এতে যে শুধু নখের সৌন্দর্য হ্রাস পায়, তা নয়। সেই সঙ্গে সার্বিক হাতের সৌন্দর্যতাও কমে যেতে শুরু করে।

৫) নখ হারানো:- বিশেষজ্ঞদের মতে দীর্ঘদিন ধরে নখ খেলে ‘নেল বেড’ এত মাত্রায় ক্ষতিগ্রস্ত হয় যে পুনরায় নখ বেড়ে ওঠে না। ফলে ধীরে ধীরে আঙুলে নখই থাকে না। এমনটা হলে হাতের সৌন্দর্য কমতে সময় লাগে না।

৬) নখের সংক্রমণ:- নখ খাওয়ার সময় আঙুলের এই অংশে ছোট ছোট আঘাত লাগতে থাকে। ফলে নখের মধ্যে থাকা ব্যাকটেরিয়া এসব ক্ষতস্থানের মধ্যে দিয়ে রক্তে মিশে যাওয়ার সুযোগ পায়। একবার যদি এমনটা হয়ে যায়, তাহলে নখের সংক্রমণ, এমনকী রক্তের সংক্রমণ হওয়ার অশঙ্কাও বৃদ্ধি পায়।