শরীরে কোন জায়গার ব্যথা অবহেলা করলেই বিপদে পড়তে পারেন

369
শরীরে কোন জায়গার ব্যথা অবহেলা করলেই বিপদে পড়তে পারেন

শরীরের নানা অংশে সবারই মাঝে মধ্যে ব্যথা হয়। ব্যথা কম হলে অধিকাংশ মানুষই এটাকে গুরুত্ব দেয় না। অথচ এ সব ব্যথাই হতে পারে অনেক বড় কোনও সমস্যার প্রাথমিক লক্ষণ- যা পরবর্তীতে বিপদ ডেকে আনে। তাই এ সব ব্যথা মোটেই অবহেলা করা উচিত নয়। বিশেষজ্ঞরা বলেন, শরীরের এমন কিছু সমস্যা আছে যেগুলি দেখা দেওয়া মাত্র চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া জরুরি।

) যদি দাঁত ব্যাথার মাত্রা এতটা বৃদ্ধি পায় যে, মাঝরাতে ব্যথার ঘুম কারণে ভেঙে যায়, তাহলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া জরুরি। দাঁতের ছিদ্রের মাধ্যমে ইনফেকশন মাড়ি পর্যন্ত পৌঁছে গেলে এ ধরনের তীব্র ব্যথা হতে পারে।

) হঠাৎ করে যদি মাথায় অস্বাভাবিক যন্ত্রণা শুরু হয় এবং মাথার ব্যথায় দৃষ্টিশক্তি ঘোলাতে হতে শুরু করে, তাহলে বিষয়টিকে অবহেলা করা একেবারেই উচিত হবে না। মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ, কোনও আঘাত, টিউমার ইত্যাদির কারণে মাথায় এ ধরণের অস্বাভাবিক ব্যথা হতে পারে। এমন সমস্যা দেখা দিলে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

) তল পেটের ডান দিকে ব্যথা যদি ২৪ ঘন্টার বেশি সময় পর্যন্ত স্থায়ী হয় এবং ব্যথার স্থান যদি ঘন ঘন তল পেটের নানা অংশে ঘোরাফেরা করতে থাকে তাহলে এটা অ্যাপেন্ডিসাইটিসের লক্ষণ হতে পারে। এ ধরনের সমস্যাও অবহেলা করা ঠিক নয়।

) পিঠের মাঝামাঝি জায়গায় ব্যথা হলে এবং সেই সঙ্গে জ্বর আর ক্লান্তি থাকলে –এটাও অবহেলা করবেন না। এগুলো হতে পারে কিডনি সমস্যার লক্ষণ। কিডনিতে ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণ এবং ইউরিন ইনফেকশনের জন্য এ ধরণের ব্যথা হতে পারে।

) নারীদের পিরিয়ড চলাকালীন সময়ে যদি অস্বাভাবিক পেটে ব্যথা থাকে এবং সেই ব্যথা যদি সহজে না কমে, তাহলে বিষয়টা একেবারেই অবহেলা করবেন না। কারণ, নানা রকম গাইনি সমস্যার কারণে এ ধরনের অস্বাভাবিক ব্যথা হতে পারে। এমন পরিস্থিতিতে চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া খুবই জরুরি। তথ্য সাহায্য- সমকাল, জি নিউজ