দেখে নিন সন্তান নেওার সঠিক সময় কনটি

1448
দেখে নিন সন্তান নেওার সঠিক সময় কনটি
দেখে নিন সন্তান নেওার সঠিক সময় কনটি

অনেকের ধারণা, জন্মনিয়ন্ত্রণের কোনো পদ্ধতি ব্যবহার করলে ডিম্বাণুর সংখ্যা কমে যাওয়া রোধ করা যায়। কিন্তু এটি ভুল ধারণা।
একজন নারীর ৩০ বছরের পর থেকে ডিম্বাণু নিঃশেষ হওয়ার পরিমাণ ত্বরান্বিত হওয়া শুরু হয়। আর ৩৫ বছরের পর থেকে আরো দ্রুততার সঙ্গে শেষ হয়। সেই সঙ্গে ডিম্বাণুর গুণগতমান কমতে থাকে। ৪৭-৪৮ বছরের নারীও মাসিক নিয়মিত হয় কিন্তু গর্ভবতী হওয়ার ক্ষমতা হারিয়ে ফেলে। তাই ক্যারিয়ার গড়ার বয়সের সীমারেখা না থাকলেও আছে মাতৃত্বের বয়সের সীমারেখা।

আরো পড়ুনঃ- রাতে কিছুতেই ঘুম আসছে না ? দেখুন ঘুম আসার কিছু উপায়

আরো কিছু কারণে ডিম্বাণুর পরিমাণ কমতে পারে। যেমন ডিম্বাশয়ে কোনো অস্ত্রোপচার হলে। ডিম্ব নালী কেটে গেলে। পারিবারিক রোগের ফলেও হতে পারে। আবার ক্যানসার চিকিৎসার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া, মাতৃগর্ভে থাকা অবস্থায় ডিম্বাণুর পরিমাণ কমে যাওয়া। সেই সঙ্গে পরিবশে দূষণ ও খাবারে ভেজালের কারণেও ডিম্বাণুর পরিমাণ কমে যেতে পারে